হত্যা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে ওসি প্রদীপসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ হত্যার আসামি টেকনাফ থানার বহিষ্কৃত সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে হত্যা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে আদালতে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

১০ লাখ টাকা দাবি করে পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে আরও পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় টেকনাফের মাহমুদুর রহমান নামের এক প্রবাসীকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগ করে এজাহারটি দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার টেকনাফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল উদ্দিনের আদালতে এজাহারটি দায়ের করা হলে, দুপুর ২টার দিকে শুনানি শেষে আদালত নিহতের ময়নাতদন্ত হয়েছে কিনা এবং এ সংক্রান্ত কোনো মামলা দায়ের হয়েছে কিনা, তা আগামী ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আদালতে অবহিত করতে টেকনাফ থানাকে আদেশ দেন।

নিহত মাহমুদুর রহমানের ভাই নুরুল হোসাইন বাদি হয়ে এই এজাহার দায়ের করেন। বাদি পক্ষের আইনজীবী কাশেম আলী শুনানি শেষে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এজাহারে বাদি জানান, গত বছরের ২৮ মার্চ টেকনাফে হ্নীলা আলী আকবর পাড়ার মিয়া হোসেনের পুত্র প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে থানার এসআই দীপকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। পরে দীপক ও ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ক্রসফায়ার না দেয়ার শর্তে প্রবাসীর পরিবারের লোকজন থেকে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন। পরিবার নিরুপায় হয়ে পাঁচ লাখ টাকা দেন। কিন্তু আরও পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে পুলিশ। দাবিকৃত পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় ৩১ মার্চ রাতে ক্রসফায়ারের নামে প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে হত্যা করা হয়।

মামলার এজাহারে এসআই দীপককে প্রধান ও বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে ২নং এবং মোট ২৩ জনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে ১৬ জন পুলিশ সদস্য। বাকি সাত জন চৌকিদারসহ স্থানীয় লোকজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *