মেসির আশা ছেড়ে দিয়েছে পিএসজি

লিওনেল মেসির প্রিয় ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা প্রকাশ্যে আসার পর, নতুন ঠিকানা হিসেবে যে কয়টি ক্লাবের নাম এসেছে তাদের মধ্যে উপরের সারিতেই ছিল ফরাসি ক্লাব পিএসজি। তবে গণমাধ্যম বলছে, মেসির ব্যয় বহন করার মতো সামর্থ্য আপাতত নেই এই ক্লাবটিরও। আর তাই আর্জেন্টাইন তারকাকে কেনার আশা ছেড়ে দিয়েছে পিএসজি।

দৌড়ে এখনো বেশ ভালোভাবেই টিকে আছে ম্যানচেস্টার সিটি। ইন্টার মিলানও জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কা বলছে, মেসির বাই আউট ক্লজ এবং বেতনভাতা, সবমিলিয়ে যে বিশাল অংকের প্রয়োজন সেটি ব্যয় করতে এই মুহূর্তে প্রস্তুত নয় পিএসজি।
এর আগে বার্সা থেকে ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে নেইমারকে এবং ১৮৫ মিলিয়ন ইউরোতে কিলিয়ান এমবাপ্পেকে কিনে হৈচৈ ফেলে দিয়েছিল ফরাসি ক্লাবটি। তবে মেসির বাইআউট ক্লজ এই দু’জনের সম্মিলিত অংকের চেয়ে দেড়গুণেরও বেশি। তাছাড়া বিশ্বসেরা ফুটবলারের বিশাল অংকের বেতন-ভাতাও আছে।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রানার আপ হওয়া দলটি নেইমার এবং এমবাপ্পের সমন্বয়ে ফরোয়ার্ড পজিশন নিয়ে বেশ সন্তুষ্ট। তাছাড়া ৫০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে গেল মৌসুমে তারা আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দিকেও দলে ভিড়িয়েছে।  আগামী মৌসুমের জন্য তারা এই মুহূর্তে ডিফেন্ডার এবং মিডফিল্ডার খুঁজছে।
গেল কয়েক মৌসুমে দলবদলে প্রচুর অর্থ ব্যয় করা পিএসজি গেল মৌসুমে এডিনসন কাভানি এবং থিয়াগো সিলভার বিদায়ে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছিল। বলা চলে, হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে। আপাতত আর এতো বিশাল অংকের বোঝা টানার পক্ষে নেই তারা।
তারপরও কোচ থমাস টাচেল চেয়েছিলেন মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে জুটি। আবারো পুরনো এবং প্রিয় সতীর্থকে পাশে পেলে বেজায় খুশি হতেন নেইমারও। তবে সেই সম্ভাবনা আপাতত শেষ হয়ে গেল বলেই জানাচ্ছে স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *